ঢাকার সেরা মহিলা মাদ্রাসার তালিকা ও ভর্তি খরচ

ঢাকার সেরা মহিলা মাদ্রাসার তালিকা

আপনার সন্তানকে যদি মহিলা মাদ্রাসায় ভর্তি করাতে চান তাহলে আজকে আর্টিকেলটি আপনার জন্য অনেক উপকারে আসবে। ঢাকা শহরের মধ্যে সেরা কয়েকটি ঢাকার সেরা মহিলা মাদ্রাসার তালিকা ও ভর্তি খরচ নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে আজকের আর্টিকেলে।

  • তামিরুল মিল্লাত মহিলা কামিল মাদ্রাসা, ঢাকা বাংলাদেশ
  • তানযীমুল উম্মাহ গার্লস হিফস মাদ্রাসা, ঢাকা বাংলাদেশ
  • মিরপুর জামিয়া সিদ্দিকিয়া নূরানী মহিলা মাদ্রাসা, ঢাকা বাংলাদেশ
  • জান্নাতুল বানাত মহিলা মাদ্রাসা, ঢাকা বাংলাদেশ
  • হযরত খাদিজা (রা:) আদর্শ মহিলা, মাদ্রাসা ঢাকা বাংলাদেশ
  • তালিমুল উসওইয়া মহিলা মাদ্রাসা , ঢাকা বাংলাদেশ
  • মাহমুদা খাতুন মহিলা কামিল মাদ্রাসা , ঢাকা বাংলাদেশ
  • আদর্শ ইসলামী মিশন মহিলা কামিল মাদ্রাসা , ঢাকা বাংলাদেশ
  • মাহমুদিয়া মহিলা মাদ্রাসা , ঢাকা বাংলাদেশ
  • দারুন্নাজাত মহিলা মাদ্রাসা, ঢাকা বাংলাদেশ

Dhaka best’s women’s madrasa কোথায় অবস্থিত

আমরা চেষ্টা করেছি ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের ভিতর বিভিন্ন এলাকা থেকে সেরা মহিলা মাদ্রাসা গুলোতে সিলেক্ট করতে। অর্থাৎ আপনার বাসা ঢাকা শহরে যেখানেই হোক আশা করি এই তালিকা থেকে পছন্দমতো সেরা মাদ্রাসাটি ভর্তি করতে পারবেন।

তানযীমুল উম্মাহ গার্লস হিফস মাদ্রাসা, উত্তরা

তানযীমুল উম্মাহ গার্লস হিফস মাদ্রাসা এর ঠিকানা উত্তরা ঢাকা। বাড়ি#৫৪, রোড#১৮ সেক্টর#১৪ উত্তরা ঢাকা

এই মাদ্রাসাটি মেয়েদের জন্য রেগুলার মাদ্রাসা পড়ার পাশাপাশি হিফজ রয়েছে। এছাড়া রয়েছে আধুনিক ছাত্রী হোস্টেল এবং উন্নতমানের খাবারের ব্যবস্থা।

মিরপুর জামিয়া সিদ্দিকিয়া নূরানী মহিলা মাদ্রাসা, মিরপুর

মিরপুর জামিয়া সিদ্দিকিয়া নূরানী মহিলা মাদ্রাসা মিরপুর-২, ঢাকা-৫ অবস্থিত।

আপনার বাসা যদি মিরপুরের আশেপাশে হয়ে থাকে তাহলে নিশ্চিন্তে জামিয়া সিদ্দিকিয়া নূরানী মাদ্রাসায় আপনার কন্যা সন্তানকে দিতে পারেন। বিগত বেশ কয়েক বছর ধরে শিরোনামের সাথে মহিলা মাদ্রাসা পরিচালিত হয়ে আসছে। সুদক্ষ শিক্ষক দ্বারা পরিচালিত হয় এবং আবাসিক-অনাবাসিক উভয় ব্যবস্থা রয়েছে মাদ্রাসাটিতে।

জান্নাতুল বানাত মহিলা মাদ্রাসা, কেরানীগঞ্জ

জান্নাতুল বানাত মহিলা মাদ্রাসা আটিপাড়া, কেরানীগঞ্জ ঢাকা তে অবস্থিত।

জান্নাতুল বানাত একটি আধুনিক মহিলা মাদ্রাসা। প্রতিবছর শিক্ষাবোর্ডে বেশ ভালো অবস্থানে থাকে মাদ্রাসাটি। তাই আপনার সন্তানকে নিশ্চিন্তে এই মাদ্রাসায় পড়াতে পারেন।

তামিরুল মিল্লাত মহিলা কামিল মাদ্রাসা, টঙ্গী

ঢাকার সেরা মহিলা মাদ্রাসার তালিকা মধ্যে তামিরুল মিল্লাত মহিলা কামিল মাদ্রাসা ঢাকায় টঙ্গীতে অবস্থিত। বাংলাদেশের মধ্যে একটি সর্বশ্রেষ্ঠ ধর্মীয় উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠান এটি।1963 সালে ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের মাধ্যমে এই মাদ্রাসাটি প্রতিষ্ঠা লাভ করেন। তামিরুল মিল্লাত ট্রাস্ট পরিচালিত তামিরুল মিল্লাত মহিলা কামিল মাদ্রাসা বাংলাদেশ একটি দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

ইসলামী ও আধুনিক আদর্শ শিক্ষা সমন্বয় করতে এই মাদ্রাসাটি প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। মাদ্রাসাটি বরাবরের মতই দেশের শীর্ষ মহিলা মাদ্রাসার মধ্যে স্থান দখল করে নিয়েছে।

মাদ্রাসার দাখিল আলিম স্তরে বিজ্ঞান ও মানবিক বিভাগ হাদিস তাফসির ও ফিকহা বিভাগ চালু রয়েছে। 2010 সাল থেকে 4 বছর মেয়াদী অনার্স কোর্স চালু হয়েছে।

ঢাকা জেলার কাওমি মহিলা মাদ্রাসার তালিকা

  • ইসলামিক রিসার্চ সেন্টার বাংলাদেশ, বসুন্ধরা
  • শাইখ যাকারিয়া ইসলামিক রিসার্চ সেন্টার ,খিলখেত
  • জামিয়া ইসলামিয়া আরাবিয়া ,ইসলামপুর
  • জামিয়া মাদানিয়া ,বারিধারা ঢাকা
  • জামিয়া সাহবানিয়া দারুল উলুম
  • জামিয়া কুরআনিয়া আরাবিয়া, লালবাগ
  • জামিয়া রাহমানিয়া আরাবিয়া ,ঢাকা মোহাম্মদপুর
  • জামিয়া হোসাইনিয়া আশরাফুল উলুম, বড় কাটরা
  • জামিয়াতুল আসাদ আল ইসলামিয়া
  • জামিয়া নুরিয়া ইসলামিয়া
  • জামিয়া শারইয়্যাহ ,মালিবাগ ঢাকা
  • জামিয়া আরাবিয়া ইমদাদুল উলুম ফরিদাবাদ মাদ্রাসা
  • জামিয়া ইসলামিয়া দারুল উলুম মাদানিয়া
  • জামিয়া আরাবিয়া খাদিমুল ইসলাম
  • জামিয়া মোহাম্মদিয়া ইসলামিয়া বানানি
  • জামিয়া ইসলামিয়া দারুল উলুম আকবর
  • জামিয়া মাদানিয়া আঙ্গুরা মোহাম্মদপুর
  • জামিয়া ইসলামিয়া লালমাটিয়া
  • ইন্টার্নেশনাল কুরআন মাদ্রাসা

মহিলা মাদ্রাসা গুলোতে আবেদনের নিয়ম

সাধারণত মহিলা মাদ্রাসা গুলোতে আবেদন করতে হলে তাদের দেওয়া অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে। তারপর আপনি সরাসরি আবেদনের নিয়ম ও ভর্তির তারিখ দেখে আবেদন করতে পারেন। তবে আবেদনের ক্ষেত্রে অবশ্যই আপনি সেখানে থাকা যোগ্যতা অনুযায়ী আবেদন করতে পারবেন।

তবে অনেক মাদ্রাসায় সরাসরি মাদ্রাসায় গিয়ে আবেদন ফরম পূরণ করে জমা দিতে হয়। এবং ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু হলে সরাসরি মাদ্রাসা থেকে ভর্তি হতে হয়।

মহিলা মাদ্রাসা ভর্তির যোগ্যতা

মহিলা মাদ্রাসায় ভর্তি হতে হলে আপনাকে অবশ্যই সর্বনিম্ন কিছু শিক্ষাগত যোগ্যতা থাকতে হবে। যেমন নূরানী, মুক্ত অথবা হাজেরা বিভাগ থেকে থেকে যদি আপনি শিক্ষা গ্রহণ করে থাকেন। তাহলে আপনি মাদ্রাসায় ভর্তির যোগ্যতা অর্জন করতে পারবেন। আর যদি আপনি একেবারে নতুন হয়ে থাকেন তাহলে অবশ্যই আপনাকে কোন নূরানী, হাজেরা অথবা মুক্ত বিভাগ থেকে প্রথমে শিক্ষা গ্রহণ করে তারপর মাদ্রাসায় ভর্তি হতে হবে।

তবে অনেক মাদ্রাসায় ভর্তির নিয়ম ভিন্ন হতে পারে। সে ক্ষেত্রে প্রথমে আপনাকে সেই মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলে ভর্তির যোগ্যতা সম্পর্কে জেনে নিতে হবে।

মহিলা মাদ্রাসায় ভর্তি তথ্য

  • ভর্তি ফরমের সাথে সকল নতুন পুরাতন ছাত্রীদের দুই কপি পাসপোর্ট সাইজ ছবি এবং অভিভাবকের এক কপি ছবি অবশ্যই জমা দিতে হবে
  • ভর্তি ইচ্ছুক সকল শিক্ষার্থীকে টিসি ও জন্ম নিবন্ধন সনদ পত্র সাথে আনতে হবে
  • প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে
  • ভর্তির সময় সকল শিক্ষার্থীর ভর্তি ফি ও প্রথম এক মাসের বেতন আদায় করতে হবে। এবং পরিবহন ব্যবহার করলে অগ্রিম একমাসের পরিবহন চার্জ প্রদান করতে হবে
  • নির্দিষ্ট তারিখের মধ্যে ভর্তি হতে হবে
  • রশিদ প্রদানের পর কোন টাকা ফেরত যোগ্য নয়।

ঢাকার সেরা মহিলা মাদ্রাসার ভর্তি খরচ

ঢাকার সেরা মহিলা মাদ্রাসা গুলোর ভর্তির খরচ কি রকম হবে এ নিয়ে অনেকের মনে প্রশ্ন জাগে সাধারণত বিভিন্ন মহিলা মাদ্রাসায় ভর্তি খরচ বিভিন্ন রকম হয়ে থাকে। তবে ঢাকার সেরা নামি দামি মহিলা মাদ্রাসা গুলো তে ভর্তির খরচ 4000 থেকে 4000 টাকার মধ্যে হতে পারে। মাদ্রাসা গুলোর উপর নির্ভর করে ভর্তি খরচ নির্ধারণ করা হয়।

এছাড়াও আরো কিছু খরচ হতে পারে তার মধ্যে খাওয়া এবং থাকার খরচ। যারা মহিলা মাদ্রাসা ভর্তি হতে চান তাদেরকে মাদ্রাসায় থাকা এবং খাওয়ার ব্যবস্থা করে দেওয়া হয়। তবে সেক্ষেত্রে থাকা এবং খাওয়া বাবদ কি রকম খরচ হবে সেটা মাদ্রাসা থেকে নির্ধারণ করে দেওয়া হয়। বিভিন্ন মাদ্রাসা বিভিন্ন রকম খরচ হতে পারে সেটা মাদ্রাসা থেকে জেনে নিতে হবে। এছাড়াও কিতাব কেনার খরচ ও মাদ্রাসা গুলোতে মাসিক খরচ দিতে হয়।

সাধারণত যে কোন মাদ্রাসা তাদের ভর্তি কার্যক্রম শাওয়াল মাসের 5 থেকে 7 তারিখের মধ্যে সম্পন্ন করে থাকেন। তবে অনেক ক্ষেত্রে ব্যতিক্রম হতে পারে। অর্থাৎ বিভিন্ন মাদ্রাসায় ভর্তি কার্যক্রম থাকা-খাওয়া অথবা কিতাব ও মাসিক খরচ বিভিন্ন রকম হতে পারে। সেটা আপনাকে সেই মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে জেনে নিতে হবে।

মহিলা মাদ্রাসায় শিক্ষকদের যোগ্যতা

যে কোন মাদ্রাসায় শিক্ষকতা করতে মোটামুটি আলেম পাস হলেই হয়। আপনার শিক্ষাগত যোগ্যতা আলেম পাশ হলে হলে আপনি যে কোন মাদ্রাসা শিক্ষক হতে পারবেন। তবে অনেক মাদ্রাসা অনেক ভাবেই শিক্ষক নিয়োগ দিয়ে থাকেন অর্থাৎ যে বিষয়ের উপর শিক্ষক নেবে সে বিষয়ের উপর রেজাল্ট মোটামুটি ভালো থাকতে হবে ।এবং সেই বিষয়ের উপর বেশি পারদর্শী থাকতে হবে তাহলে মাদ্রাসার শিক্ষক হওয়ার যোগ্যতা অর্জন করবেন।

ঢাকার সেরা মহিলা মাদ্রাসার তালিকা

মহিলা মাদ্রাসায় কি রকম পর্দার ব্যবস্থা থাকে

Women’s Madrasa গুলোতে পর্দার ব্যবস্থা খুব কড়াকড়ি ভাবে করা হয়। এখানে যেহেতু সবাই মহিলা তাই মহিলা শিক্ষক দিয়েই পড়াশোনার ব্যবস্থা থাকে। আবার অনেক মাদ্রাসা পুরুষ শিক্ষক দিয়েও শিক্ষাদান করা হয় তবে সে ক্ষেত্রে মহিলাদের খুব কড়া ভাবেই পর্দার বিষয়টা গুরুত্ব দেওয়া হয়।

মন্তব্য

আমরা আজকে আপনাদের সাথে ঢাকার সেরা মহিলা মাদ্রাসার তালিকা, মহিলা মাদ্রাসা গুলো কোথায় অবস্থিত, মাদ্রাসা গুলোতে আবেদনের নিয়ম, ভর্তির যোগ্যতা, ভর্তি তথ্য  এবং ভর্তি খরচ সম্পর্কে জানানোর চেষ্টা করেছি।

যদি আপনাদের আজকের এই আর্টিকেলটি ভালো লাগে তাহলে অবশ্যই আপনারা আপনাদের বন্ধু অথবা প্রিয়জনদের সাথে শেয়ার করতে পারেন। আর আর্টিকেলটি সম্পর্কে কিছু জানার থাকলে অবশ্যই আমাদের কমেন্ট সেকশনে কমেন্ট করবেন। আমরা খুব দ্রুত আপনার প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করব।

আরো পড়ুন –

ইজি টেকিং - একটি বাংলা ব্লগিং প্লাটফর্ম। এখানে বাংলা ভাষায় শিক্ষা ও প্রযুক্তি বিষয়ক বিভিন্ন জানা-অজানা তথ্য প্রকাশ করা হয়। বাংলা ভাষায় সবার মাঝে সঠিক তথ্য পৌছে দেয়াই আমাদের লক্ষ্য।

1 thought on “ঢাকার সেরা মহিলা মাদ্রাসার তালিকা ও ভর্তি খরচ”

Leave a Comment