দেখে নিন সেনাবাহিনীর কোন পদের বেতন কত টাকা । সেনাবাহিনী সিভিল নিয়োগ ২০২২

সেনাবাহিনী সিভিল নিয়োগ ২০২২

বাংলাদেশ সেনাবাহিনী অনেকের ই পছন্দের তালিকার শীর্ষে থাকে। রিসেন্টলি বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর নতুন নিয়গ বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে আপনি ইন্টারেস্টেড থাকলে নিছের ছবি থেকে চাকরি নিয়ে বিস্তারিত দেখে নিতে পারেন। নিচে সেনাবাহিনী সিভিল নিয়োগ ২০২২ এর সকল তথ্য সম্বলিত ছবি এটাস্ট করা হলো।

সেনাবাহিনী সিভিল নিয়োগ ২০২২
ছবি : সেনাবাহিনী সিভিল নিয়োগ ২০২২

সেনাবাহিনীর কোন পদের বেতন কত

আসসালামু আলাইকুম। কেমন আছেন সবাই? আশা করি সবাই ভাল আছেন আর আমি আল্লার রহমতে ভালই আছি আজকে আমি সেনাবাহিনীর মূল বেতন কত কে কত বেতন পায় এসব কিছু নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব :

সেনাবাহিনীর বেতন কত বা কোন পদের বেতন কত টাকা একটিমাত্র প্রশ্ন বেশিরভাগ মানুষের মাঝে রয়েছে হোক সে চাকরি করুক বা না করুক বেতন কত টাকা তা নিয়ে সবার মাঝে একটি কৌতুহল বিরাজ করে তবে আজকের পোস্ট দেখার পর আপনাদের মাঝে আর কোন প্রশ্ন ও কৌতূহল থাকবে না কারণ আজকে পোস্ট এর মাধ্যমে সেনাবাহিনীর কোন পদের বেতন কত টাকা এই বিষয়টি আপনারা বিস্তারিত জানতে পারবেন এবং এখন থেকে এই ওয়েব সাইট এ নিয়মিত নতুন নতুন post পাবেন সুতরাং আজকের post টিতে শুধুমাত্র মূল বেতন এবং মূল বেতনের ইনক্রিমেন্ট নিয়ে আলোচনা করা হবে :

সেনাবাহিনী সিভিল নিয়োগ
ছবি: সেনাবাহিনী সিভিল নিয়োগ

দেখে নিন সেনাবাহিনীর কোন পদের বেতন কত টাকা

কমেন্ট করলে পরবর্তীতে বেতনের এলাউন্স বা তা নিয়ে বিস্তারিত post দেয়া হবে প্রতিটি পদবী নির্দিষ্ট একটি বেতন থেকে শুরু হয় এবং প্রতিটি পদবীর সর্বনিম্ন নির্দিষ্ট একটি বেতন রয়েছে এবং সর্বোচ্চ একটু বেতন রয়েছে সৈনিক থেকে ল্যান্স কর্পোরাল হলে সৈনিক অবস্থায় যত টাকা বেতন থাকবে ল্যান্স কর্পোরাল হওয়ার পর সৈনিক অবস্থায় যত টাকা বেতন ছিল সে বেতনের সাথে সৈনিকের মিনিমাম বেতন এবং ল্যান্স কর্পোরাল এর মিনিমাম বেতনের যত টাকা পার্থক্য থাকবে সেটিও বেতনের সাথে যোগ হবে হয়তো বুঝতে পারেননি বিষয়টি তাই একটি উদাহরণ দিচ্ছি মনে করুন সৈনিকের মিনিমাম মূল বেতন 9 হাজার টাকা এবং ল্যান্স কর্পোরাল এর মিনিমাম মূলধন 10 হাজার টাকা তাহলে সৈনিক থেকে ল্যান্স কর্পোরাল এর মিনিমাম মূল বেতন 1000 টাকা।

বেশি এখন ধরুন আপনি সৈনিক পদে 17 বছর চাকরি করার পর আপনার মূল বেতণ হলো 14 হাজার টাকা এবং 14 হাজার টাকা বেতন অবস্থায় আপনি সৈনিক থেকে ল্যান্স কর্পোরাল হলেন এখন ল্যান্স কর্পোরাল হওয়ার পর আপনার বেতন হবে সৈনিক অবস্থা যত টাকা বেতন ছিল তার সাথে অতিরিক্ত 1000 টাকা যোগ হবে অর্থাৎ 15 হাজার টাকা এখন প্রশ্ন হল এই অতিরিক্ত 1000 টাকা কোথা থেকে আসলো অতিরিক্ত 1000 টাকা হলো সৈনিক থেকে ল্যান্স কর্পোরাল এর যে মিনিমাম বেতনের পার্থক্য রয়েছে সেটি একইভাবে সকল পদের বেতন এইভাবে মূল বেতনের সাথে মিনিমাম বেতনের যত টাকা পার্থক্য থাকবে সেটি হবে মাঠে চাকরি হবার পর ট্রেনিং অবস্থা সৈনিকদের রিক্রুট বলা হয় একজন রিক্রুটের মূল বেতন 9 হাজার টাকা এটি একটি নির্ধারিত বেতন যতদিন ট্রেনিং হবে এই বেতন পাবে ট্রেনিং শেষে সৈনিক পদে যোগদান করার পর একজন সৈনিকের মূল বেতন হবে 9 হাজার টাকা।

দেখে নিন সেনাবাহিনীর কোন পদের বেতন কত টাকা

তবে ট্রেনিং যদি জুন-জুলাই মাসের আগে শেষ হয় তাহলে তার বেতন 9500 টাকা হবে সৈনিক অবস্থায় একজন সৈনিকের মূল বেতন সর্বোচ্চ 22 হাজার টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে এবং সৈনিক অবস্থায় সর্বনিম্ন প্রতিবছর 500 টাকা থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ এক হাজার টাকা পর্যন্ত বেতন বৃদ্ধি পায় বা ইনক্রিমেন্ট হয় ল্যান্স কর্পোরাল সৈনিক অবস্থার যে যত টাকা বেতনের থাকা অবস্থায় ল্যান্স কর্পোরাল পদবী পাবে তার মূল বেতন সৈনিক অবস্থায় যত টাকা ছিল সেখান থেকে শুরু হবে। একজন ল্যান্স কর্পোরাল এর মূল বেতন সর্বোচ্চ 24 হাজার 500 টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে এবং ল্যান্স কর্পোরাল অবস্থায় প্রতি বছর সর্বনিম্ন 520 টাকা থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ বারোশো টাকা পর্যন্ত বেতন বৃদ্ধি পায়।

 

কর্পোরাল ল্যান্স কর্পোরাল অবস্থায় যে যত টাকা বেতনের থাকা অবস্থায় কর্পোরাল পদবী পাবে তার মূল বেতন ল্যান্স কর্পোরাল অবস্থায় যত টাকা ছিল সেখান থেকে শুরু হবে এছাড়াও সেনাবাহিনীর এনসিও ভার্ণন কমিশন্ড অফিসার পদবী এই লিঙ্ক থেকে শুরু হয় একজন কর্পোরাল এর মূল বেতন সর্বোচ্চ 26 হাজার 500 টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে এবং কর্পোরাল অবস্থার প্রতি বছর সর্বনিম্ন 550 টাকা থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ 100 টাকা পর্যন্ত বেতন বৃদ্ধি পায় সার্জেন্ট ব্রিটিশ সেনাবাহিনীর গুরুত্বপূর্ণ একটি পদবী একজন সার্জেন্টের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করে থাকেন যেমন কোন একটি কোম্পানির দায়িত্বে থাকা ইত্যাদি এবং কর্পোরাল থেকে সার্জেন্ট যারা আছেন তাদেরকে এনসিও বলা হয় কর্পোরাল অবস্থায় যে যত টাকা বেতনের থাকা অবস্থায় সার্জেন্ট পদ্ধতি পাবে তার মূল বেতন কর্পোরাল অবস্থায় যত টাকা ছিল.

সেখান থেকে শুরু হবে একজন সার্জেন্টের মূল বেতন সর্বোচ্চ 38 হাজার 500 টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে এবং সার্জেন্ট অবস্থায় প্রতি বছর সর্বনিম্ন 800 টাকা থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ দুই হাজার টাকা পর্যন্ত বেতন বৃদ্ধি পায় আলোচিত পদবী গুলো সেনা বাহিনীর নন-কমিশন অফিসারদের প্রথম পর্যায়ের সদস্য এবার জানা যাক জুনিয়র কমিশন্ড অফিসার বা সেনাবাহিনীর মধ্যম পর্যায়ের অফিসারদের বেতন সম্পর্কে এবং এই জুনিয়র কমিশন্ড অফিসার থেকে সেনাবাহিনীর অফিসার পদবীর শুরু হয় ওয়ারেন্ট অফিসার কোন প্রার্থী যদি সরাসরি ওয়ারেন্ট অফিসার পদে যোগদান করে তাহলে তার মূল বেতন হবে বাইশ হাজার টাকা এবং কেউ যদি সার্জেন্ট থেকে ওয়ারেন্ট অফিসার হয়ে থাকে তাহলে তার বেতন সার্জেন্ট অবস্থায় যত টাকা ছিল সেখান থেকে.

হবে এক্ষেত্রে সরাসরি ওয়ারেন্ট অফিসার দের বেতন তুলনামূলক কম থাকবে অন্যান্য ওয়ারেন্ট অফিসার দের থেকে একজন ওয়ারেন্ট অফিসার এর মূল বেতন সর্বোচ্চ 48 হাজার টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে এবং ওয়ারেন্ট অফিসার অবস্থায় প্রতি বছর সর্বনিম্ন 1100 টাকা থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ 2300 টাকা পর্যন্ত বেতন বৃদ্ধি পায় সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার ওয়ারেন্ট অফিসার থাকা অবস্থায় যত টাকা বেতন থাকবে সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার হওয়ার পর সেখান থেকে শুরু হবে একজন সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার এর মূল বেতন সর্বোচ্চ 50 হাজার 500 টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে এবং সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার অবস্থায় প্রতি বছর সর্বনিম্ন 1110 টাকা থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ 2300 টাকা পর্যন্ত বেতন বৃদ্ধি পায় মাস্টার ওয়ারেন্ট অফিসার সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার.

থাকা অবস্থায় যে যত টাকা বেতন পাবে মাস্টার ওয়ারেন্ট অফিসার হওয়ার পর সেখান থেকে শুরু হবে একজন মাস্টার ওয়ারেন্ট অফিসার এর মূল বেতন সর্বোচ্চ 53 হাজার টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে এবং মাস্টার ওয়ারেন্ট অফিসার প্রতিবছর সর্বনিম্ন 1130 টাকা থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ 2350 টাকা পর্যন্ত বেতন বৃদ্ধি পায় এই পর্যন্ত হলো জিহবা জুনিয়র কমিশন্ড অফিসার এক্ষেত্রে যারা সৈনিক থেকে ধাপে ধাপে জেসিও হয় তাদের যদি ভাল পারফরম্যান্স থাকে এবং চাকরি জীবনে কোনো কমপ্লেন না থাকে তাহলে সেক্ষেত্রে খুব অল্পসংখ্যক কয়েকজন জেসিয়াকে মাস্টার ওয়ারেন্ট অফিসার হওয়ার পর সম্মানজনক কমিশন্ড অফিসার এর দুটি পদে প্রদান করা হয় এক অনারারী লেফটেন্যান্ট এবং দুই অনারারী ক্যাপ্টেন অনারারী লেফটেন্যান্ট এবং অনারারী ক্যাপ্টেন এর বেতন নির্ধারিত থাকে একজন অনারারী লেফটেন্যান্ট এর মূল বেতন 38 হাজার 500 টাকা এবং একজন অনারারী ক্যাপ্টেন এর মূল বেতন 42 হাজার 900 টাকা এই হল এনসিওর মাসিক মূল বেতন বাকি থাকল কমিশন্ড অফিসার এর বেতন কমিশন অফিসারের বেতন এক্ষেত্রে কে কোন কোরে রয়েছে সেই কর্মের উপর নির্ভর করে একই পদবীর অফিসারের বেতন ভিন্ন হয়ে থাকে কমিশন্ড অফিসার এর বেতন এবং সকল বেতনের অ্যানাউন্স বা তা নিয়ে বিস্তারিত পোস্ট চাইলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন সবাই ভাল থাকবেন।

ইজি টেকিং - একটি বাংলা ব্লগিং প্লাটফর্ম। এখানে বাংলা ভাষায় শিক্ষা ও প্রযুক্তি বিষয়ক বিভিন্ন জানা-অজানা তথ্য প্রকাশ করা হয়। বাংলা ভাষায় সবার মাঝে সঠিক তথ্য পৌছে দেয়াই আমাদের লক্ষ্য।

Leave a Comment