ন্যাশনাল মেরিটাইম ইনস্টিটিউট রেটিং ভর্তি যোগ্যতা

ন্যাশনাল মেরিটাইম ইনস্টিটিউট রেটিং ভর্তি যোগ্যতা ও আবেদনের নিয়ম

ন্যাশনাল মেরিটাইম ইনস্টিটিউট রেটিং ভর্তি যোগ্যতা

চট্টগ্রামের ন্যাশনাল মেরিটাইম ইনস্টিটিউট এবং মাদারীপুর ন্যাশনাল মেরিটাইম ইনস্টিটিউট স্বল্পমেয়াদী এর রেটিং করছে প্রশিক্ষণের জন্য ভর্তি ইচ্ছুক বাংলাদেশী পুরুষ প্রার্থীদের নেয়া হচ্ছে। আবেদনের নিয়ম ও ভর্তি যোগ্যতা নিচে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

রেটিং/ পদের নাম বয়স শিক্ষাগত যোগ্যতা
ডেক রেটিং প্রশিক্ষনার্থ ১৬ থেকে ২০ বছর এসএসসি (বিজ্ঞান) সর্বনিম্ন ২.৫
ইঞ্জিন রেটিং প্রশিক্ষনার্থী ১৬ থেকে ২০ বছর এসএসসি (বিজ্ঞান) সর্বনিম্ন ২.৫
স্টুয়ার্ড রেটিং প্রশিক্ষনার্থী ১৬ থেকে ২০ বছর এসএসসি (যে কোন গ্রুপ) সর্বনিম্ন ২.৫
কুক রেটিং প্রশিক্ষনার্থী ১৬ থেকে ২০ বছর
২০ থেকে ৩৫ বছর (অভিজ্ঞ প্রার্থী)
এসএসসি (যে কোন গ্রুপ) সর্বনিম্ন ২.৫
অথবা
নূন্যতম এসএসসি পাশ সহ পোস্টাল জাহাজ বা ফিশিং জাহাজে কোক হিসাবে কমপক্ষে দুই বছরে চাকরির অভিজ্ঞতা/
ফিটার কাম ওয়েলডার রেটিং প্রশিক্ষনার্থী ২০ থেকে ৩৫ বছর সরকার অনুমোদিত কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে মেরিন/মেকানিক্যাল/পাওয়ার/অটোমোবাইল ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপ্লোমা পাস।
অথবা
ন্যূনতম এসএসসি পাস সহ কোস্টাল জাহাজে ফিল্টার কাম ওয়েল্ডার হিসেবে কমপক্ষে তিন বছরের চাকুরীর অভিজ্ঞতা।
অথবা
ন্যূনতম এসএসসি পাস সহ অনুমোদিত মেরিন ওয়ার্কশপ/ডকইয়ার্ড/ শীপ ইয়ার্ডে ফিটার কাম ওয়েল্ডার হিসেবে চাকরি করার ৪ বছরের অভজ্ঞতা।
ইলেকট্রিশিয়ান রেটিং প্রশিক্ষনার্থী ২০ থেকে ৩৫ বছর সরকার অনুমোদিত যেকোনো কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হতে সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ডিপ্লোমা ডিগ্রি থাকতে হবে। এক্ষেত্রে এক বছরের অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ব্যক্তিদের অগ্রাধিকার দেয়া হবে।

ন্যাশনাল মেরিটাইম ইনস্টিটিউট ভর্তির শারীরিক যোগ্যতা

যেহেতু এই কোর্সে প্রশিক্ষণ নেয়ার পর বিভিন্ন জাহাজে দায়িত্ব পালন করতে হবে তাই শারীরিক যোগ্যতা বেশ গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। ন্যাশনাল মেরিটাইম ইনস্টিটিউটে বিভিন্ন রেটিং কোর্সে প্রশিক্ষণের জন্য কর্তৃপক্ষ ন্যূনতম কিছু শারীরিক যোগ্যতা নির্ধারণ করে দিয়েছেন। নিজে ন্যাশনাল মেরিটাইম ইনস্টিটিউট ভর্তি শারীরিক যোগ্যতা উল্লেখ করা হলো

  1. উচ্চতা – আবেদনকারী প্রার্থীর উচ্চতা কমপক্ষে ১৫৮ সেন্টিমিটার হতে হবে
  2. ওজন – আবেদনকারী ব্যক্তির ওজন কমপক্ষে ৫০ কেজি এবং সর্বোচ্চ ৮৫ কেজির মধ্যে হতে হবে
  3. বক্ষ (চেস্ট) – কমপক্ষে ৭৬ সেন্টিমিটার (বক্ষবৃদ্ধি ৫ সেন্টিমিটার)
  4. চোখের দৃষ্টি – উভয় চক্ষু ৬/৬ হতে হবে এবং বর্নান্ধমুক্ত হতে হবে

ন্যাশনাল মেরিটাইম ইনস্টিটিউট অনলাইন আবেদনের নিয়ম

ন্যাশনাল মেরিটাইম ইনস্টিটিউট ভর্তির সম্পূর্ণ আবেদন অনলাইনের মাধ্যমে করা হয়। আপনি চাইলে যে কোন কম্পিউটার দোকান থেকে সহজেই আবেদন করিয়ে নিতে পারেন। তবে আবেদনের নিয়ম খুব সহজ তাই চাইলে আপনি নিজেও আবেদন করতে পারেন। নিজে আমরা কয়েকটি ধাপে ন্যাশনাল মেরিটাইম ইন্সটিটিউট ভর্তি আবেদন করার নিয়ম বর্ণনা করছি

ধাপ ১ – প্রথমে https://www.sonalibank.com.bd/nmi/ এই লিংকে গিয়ে রেজিস্ট্রেশন ফরম পূরণ করতে হবে। লিংক কপি করতে সমস্যা হলে এখানে ক্লিক করুন।

ন্যাশনাল মেরিটাইম ইনস্টিটিউট রেটিং ভর্তি যোগ্যতা

ধাপ ২ – এই পর্যায়ে Register yourself এই বাটনে ক্লিক করার পর উপরের ছবির মত একটি User account form আসবে। আবেদনকারী ব্যক্তির নাম, বাবার নাম, মায়ের নাম ও জন্ম তারিখ এর মত কিছু সাধারণ তথ্য দিয়ে রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করা যাবে।

ন্যাশনাল মেরিটাইম ইনস্টিটিউট রেটিং ভর্তি যোগ্যতা

ধাপ ৩ – রেজিট্রেশন ফরম পুরন করা হয়ে গেলে এই লিংক থেকে  Login to fillup your Application form and Print your Candidate’s Copy এই বাটনে ক্লিক করে লগিন করতে হবে। লগিন করার জন্য প্রার্থীর নাম, মোবাইল নাম্বার ও অভিবাবকের মোবাইল নাম্বার দিতে হবে যা রেজিট্রেশনের সময় দিয়েছিলেন।

ধাপ ৪ – সঠিকভাবে লগইন করার পর ন্যাশনাল মেরিটাইম ইনস্টিটিউট ভর্তি অনলাইন আবেদন ফরমটি দেখা যাবে। ফর্মটি পূরণ করার পর ডাউনলোড করে নিতে হবে।

ধাপ ৫ – আবেদন ফরম পূরন করা হয়ে গেলে এই লিংক থেকে সোনালি ব্যাংকের ডিফোজিট ফরম টি ডাউনলোড করে সঠিকভাবে পুরন করে ৩৩৫ টাকা নিকটস্থ যেকোন সোনালি ব্যাংকের শাখায় জমা দিতে হবে। 

ধাপ ৬ – ব্যাংকে টাকা জমা দেয়ার এক কর্ম দিবসের মধ্যে ওয়েবসাইটে প্রার্থীর এডমিট কার্ড চলে আসবে। এক্ষেত্রে এই লিংকে গিয়ে Download your Admitcard অপশনে ক্লিক করে খুব সহজেই প্রার্থী তার এডমিট কার্ডটি ডাউনলোড করতে পারবেন।

ন্যাশনাল মেরিটাইম ইনস্টিটিউট ভর্তি পরীক্ষা নিয়ম

ন্যাশনাল মেরিটাইম ইনস্টিটিউট রেটিং ভর্তির জন্য সর্বমোট তিন ধাপে পরীক্ষা নেয়া হয়। 

  1. লিখিত পরীক্ষা 
  2. মৌখিক পরীক্ষা 
  3. ফিটনেস টেস্ট

লিখিত পরীক্ষা – ইংরেজি ৫০ নম্বর, গনিত ৫০ নম্বর ও সাধারন জ্ঞান ৫০ নম্বর সর্বমোট ১৫০ নম্বরের উপর লিখিত পরীক্ষা নেয়া হবে।

মৌখিক পরীক্ষা – লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা পরবর্তী ধাপ অর্থাৎ মৌখিক পরীক্ষাযর জন্য ডাক পাবেন। মৌখিক পরীক্ষা সাধারণত ন্যাশনাল মেরিটাইম ইনস্টিটিউট চট্টগ্রাম শাখায় অনুষ্ঠিত হয়।

ফিটনেস টেস্ট – শুধুমাত্র মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ পরীক্ষার্থীরা সরকারের নির্ধারিত ফি প্রধানের মাধ্যমে ফিটনেস টেস্ট এর জন্য নির্বাচিত হবেন। ফিটনেস টেস্ট এর ক্ষেত্রে সুইমিং এবং মেডিকেল রিপোর্ট চেক করা হয়।

আরো পড়ুন – সরকারি কলেজে ভর্তি হতে কি কি প্রয়োজন

ন্যাশনাল মেরিটাইম ইনস্টিটিউট ভাইবার নিয়ম

উপরের সবগুলো ধাপ সঠিকভাবে অনুসরণ করে পরীক্ষা দিয়ে একজন পরীক্ষার্থী উত্তীর্ণ হওয়ার পর ভর্তি হওয়ার পূর্বে তাকে ভাইবায় এটেন্ড করতে হবে। মৌখিক পরীক্ষায় অ্যাটেন্ড করার জন্য পরীক্ষার্থীকে কিছু কাগজপত্র নিয়ে আসতে হবে

  • অনলাইনে আবেদন ফরমের প্রিন্ট কপি
  • এসএসসি বা সম্মান পরীক্ষা পাশের সনদ ও সার্টিফিকেটের ফটোকপি
  • ডিপ্লোমাধারীদের ক্ষেত্রে পাশের সনদের ফটোকপি
  • জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি
  • প্রার্থী নাবিকের সন্তান হলে তা প্রমাণের জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র
  • স্থানীয় ইউনিয়ন হতে নাগরিকত্ব প্রমাণের সনদ

ন্যাশনাল মেরিটাইম ইনস্টিটিউট রেটিং কোর্সের সুবিধা

ন্যাশনাল মেরিটাইম ইনস্টিটিউট রেটিং কোর্সের সুবিধা গুলোর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে

রচ – এটি সরকারি প্রতিষ্ঠান তাই খরচ একেবারেই কম। সাধারণত এই ধরনের কোর্সগুলো প্রাইভেট প্রতিষ্ঠানের আন্ডারে করতে গেলে অনেক খরচ হতো সে হিসাবে অর্ধেকেরও কম খরচে ন্যাশনাল মেরিটাইম ইনস্টিটিউট থেকে দক্ষ শিক্ষকের কাছ থেকে প্রশিক্ষণ নিতে পারবেন।

চাকরির সুবিধা – সাধারণত ন্যাশনাল মেরিটাইম ইনস্টিটিউট থেকে রেটিং কোর্স করার পর অল্প সময়ের মধ্যে বিভিন্ন শিব থেকে চাকরির অফার আসে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে কোর্স করা অবস্থাতেই চাকরি হয়ে যায়। আপনি যদি এমন কোন কোর্স করতে চান যা করার পর চাকরির নিশ্চয়তা রয়েছে তাহলে এই কোর্সটি করতে পারেন।

মন্তব্য

উপরে আমরা ন্যাশনাল মেরিটাইম ইনস্টিটিউট রেটিং ভর্তি যোগ্যতা ও আবেদনের নিয়ম নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছি। আশা করছি আর্টিকেলটি আপনাদের ভালো লেগেছে। কোন প্রশ্ন বা মতামত জানার থাকলে কমেন্ট বক্সে জানাতে পারেন। আমরা দ্রুত সময়ের মধ্যে উত্তর দেয়ার চেষ্টা করব।

আরো পড়ুন – 

Easy Teching

ইজি টেকিং - একটি বাংলা ব্লগিং প্লাটফর্ম। এখানে বাংলা ভাষায় শিক্ষা ও প্রযুক্তি বিষয়ক বিভিন্ন জানা-অজানা তথ্য প্রকাশ করা হয়। বাংলা ভাষায় সবার মাঝে সঠিক তথ্য পৌছে দেয়াই আমাদের লক্ষ্য।

Leave a Reply