প্লে স্টোর থেকে টাকা ইনকাম করার উপায়

আসসালামু আলাইকুম বন্ধুরা!

কেমন আছেন সবাই? আশা করি সবাই ভালো আছেন। আজকে আমি আলোচনা করব প্লে স্টোর থেকে অ্যাপ থেকে কিভাবে টাকা ইনকাম করবেন:

play store থেকে টাকা ইনকাম করার উপায়

আপনার যদি একটা প্লে স্টোর একাউন্ট থেকে থাকে বা আপনি যদি চিন্তা করে থাকেন প্লেস্টরে অ্যাপস আপলোড দিয়ে আপনি ইনকাম করবেন তবে আপনার জন্যই এই পোস্ট টি তবে  আপনিও পাগল ভাবতেছেন প্লে স্টোর থেকে অ্যাপস ডাউনলোড দিবেন এন্ড টাকা ইনকাম করবেন তারা দেখতে থাকুন আর যারা ভাবতেছেন প্লে স্টোর অ্যাপস আপলোড দিবেন এবং নিজের একটা স্ক্রিল করবেন তারা বুঝতে থাকুন কিভাবে প্লে স্টোর থেকে আর্ন করা যায় তবে প্লেস্টোর থেকে আর্ন করার মাধ্যম কিন্তু বেশ কয়েকটি বেশ কয়েকটি বলতে প্রথম যে মাধ্যম বা সবাই যার পিছনে ছুটে সেটা হচ্ছে যে এমনটা হচ্ছে লাইক হচ্ছে আপনার এরকম যে –

অ্যাড আসার জন্য বা আমি যদি একটা অ্যাপস ইনস্টলড অ্যাপস ইন্সটল দেওয়ার পরে সেই অ্যাপসটা কী রকমের আসবে সেটা ডিসাইড করবো আমি এবার কিরকম কোন কোম্পানির এড দিব সেটা ডিসাইড করবে গুগল তার জন্য গুগলের আরেকটা প্ল্যাটফর্ম সেটা হচ্ছে এডমোব এডসেন্স করার জন্য এর মাধ্যমে আপনি টাকা আয় করতে পারবেন এডমোব এর মাধ্যমে আপনি কিভাবে ইনকাম করবেন অ্যাপের মাধ্যমে ইনকামের সিস্টেমটাও সেইরকম আপনি যে অ্যাপস গুলো প্লে স্টোরে আপলোড দিবেন সেই অ্যাপস গুলো যখন ডাউনলোড হবে ডাউনলোড হওয়ার পরে যারা যে ইউজার খোলা থাকবে আপনার সেই ইউজার গুলো যখন ইউজ করবে তখন যে স্ক্রিপ্ট জেনারেটর জেনারেটর এর উপরে যদি কোনো ক্লিক করে অটোমেটিক নিচে স্কিপ অ্যাড গুলো আসবে সেই এড গুলো যখন আপনার অ্যাপের মধ্যে প্রকাশ হবে অনেকে বলে থাকে বা লাস্ট এক বছর আগেও আমি যেটা মনে করতাম সেটা হচ্ছে প্লে স্টোর থেকে যখন আমরা অ্যাপস ডাউনলোড দে ডাউনলোড দেয়ার পরেই মেবি ওই যে লোক আছে লোকটাকে পেয়ে যায় ওয়েদার।

এটা একদম সম্পূর্ণ ভুল যদি আপনি আপনার অ্যাপস দুই কোটি 12 ডাউনলোড হয় প্লে স্টোর থেকে সেখান থেকে আপনি কোন টাকা পাবেন না কিন্তু ওই দুই কোটি যখন ইন্সটল দিব ইন্সটল দেয়ার পরও সেখানে আপনার জীবনে আসবে সেই এড গুলো যখন আস্তে আস্তে প্রদর্শন হবে তখন সেখান থেকে আপনার বেনিফিটটা চলে আসবে এই সিস্টেমটা থেকে প্লে স্টোর মাধ্যমে আয় করা যায় সেই সিস্টেমটা হচ্ছে প্লে স্টোরে আমরা ঢোকার পরে অনেক সময় পেইড অ্যাপস দেখি যে অ্যাপস গুলো ইন্সটল দিতে গেলে বা প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড দিতে গেলে টাকার প্রয়োজন হয় যদিও ওই অ্যাপসগুলো আপলোড মানে ডাউনলোড করার জন্য থার্ড পার্টি অনেক সফটওয়্যার আছে বা অনেক অনেক মাধ্যমে ডাউনলোড দিতে পারে লিজাকে অবস্থায় গেলে আর আপনার ভালো একটা সুযোগ রয়েছে তার জন্য আপনার অ্যাপসটা কে সেই মাপের হতে হবে আপনি যদি একটা সাধারন অ্যাপস মেঘ করে সেখান থেকে পেটলি দিয়ে দেন অবশ্যই আমার মত বোকা সোকা ছাড়া অন্য কেউ ওই অ্যাপসটা কিনবে না আর আপনি যদি ভালো মাপের একটা অ্যাপস যেই অ্যাপসটা।

মানুষের নিত্য দিনের প্রয়োজন এবং সেটা অবশ্যই প্রয়োজন মানুষের সেই অ্যাপসটা মানুষ কিনতে পারে ভিপিএন অ্যাপস ভিপিএন অ্যাপস এর ক্ষেত্রে দেখা যায় ইন্সটল করার পর আমরা কিনে থাকি আবার অনেক ধরনের ভিপিএন আছে এটা ডাউনলোড করার সময় পেট হয়ে যায় আমি কিছু স্ক্রিনশট এদিকে দেয়ার চেষ্টা করব যদি সম্ভব হয় যেটা করি সেটা হচ্ছে বিজনেস অ্যাপস এর মাধ্যমে বিজনেসটা কিভাবে করতে পারি সেটা হচ্ছে অনেকেই পিটিসি সাইটের মতো ওয়েবসাইট মে করে থাকে যদিও সেখানে বিলুপ্তের পথে এছাড়া আপনি যেটা করতে পারেন সেটা হচ্ছে আপনার যে কোন একটা প্রোডাক্ট আপনি কি এখন একটা বিজনেস যদি করে থাকেন সেটার এ্যাকস যদি আপনার থেকে থাকে লাইক হচ্ছে বিকাশ বা daraz.com এর মত অনেক অ্যাপ যে অ্যাপস গুলো তে আপনার ওয়েবসাইটে ফেসিলিটি গুলো আসে ফেসিলিটি সবগুলো এপ্স এর মাধ্যমে করা যায় তাহলে সেখান থেকে আপনার মনের সম্ভাবনাটা বেশি সেখান থেকে আপনার দুইদিক দেয়া হচ্ছে প্রথমত হচ্ছে আপনি যে প্রোডাক্টটা সেল করতে চাচ্ছেন।

একটা অ্যাপসের মাধ্যমে চালু হচ্ছে দ্বিতীয় তো আপনার সেখানে এর মাধ্যমে মানে অ্যাপস এর মধ্যে যে অ্যাড গুলো দিবেন সেট গুলোর মাধ্যমে সেখান থেকেও কিন্তু আড্ডা হচ্ছে এ ক্ষেত্রে দেখা যায় প্লে স্টোর অ্যাপস আপলোড করার ক্ষেত্রে থাংকেবল খুব লার্ভায় ফিল্টার এর মত যে থার্ড পার্টি ওয়েবসাইট গুলো আছে থার্ড পার্টি ওয়েবসাইট গুলো থেকে একদমই বিরত থাকুন কারণ থার্ড পার্টি ওয়েবসাইট গুলো থেকে আপনি যদি ভাল একটা স্ক্রিনের চিন্তা করেন আপনার নিজের সেটা কোনদিনই সম্ভব না আবার যদি চিন্তা করেন যে আপনি সেখান থেকে স্টার্টিং করবেন তাহলে অবশ্যই আপনার জন্য বেস্ট হতে পারে কারণ সেখান থেকে আপনি মোটিভেশন হবেন আমার মত দি মটিভেট নয় সেখানে আপনি যেটা করতে পারেন সেটা হচ্ছে ফাস্ট থেকে আপনি যদি android-studio দিয়ে শুরু করতে চান তাহলে অবশ্যই ভালো করতে পারবেন আর কেউ যদি android-studio পারেন তাহলে অবশ্যই আমাকে নক দিয়ে রাখবেন এবং আমাদের ফেসবুক গ্রুপের মধ্যে জয়েন হয়ে থাকবেন কারণ অনেক ইউজার আছে যারা থাংকেবল বাঁকুড়াতে অ্যাপস মেক করে
অ্যাপসগুলি প্লে স্টোরে আপলোড দিতে যাচ্ছে আবার আপলোড দিতে পারতেছে না যারা অ্যান্ড্রয়েড স্টুডিও পারেন তাদের জন্য কাজ বসে রয়েছে তো আজকের ভিডিওতে শ্রমিক কিছু ইনফরমেশন শেয়ার করার চেষ্টা করেছি আই হোপ ইনফরমেশন গুলো আপনার কাজে লাগবে।

সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন আর আমাদের সাইটের সাথে থাকবেন নতুন নতুন পোস্ট পেতে। আমার আর অন্যান্য পোস্ট:

আপনার চাকরি কেন হচ্ছে না ?

যে কোন প্রয়োজনে আমার সাথে যোগাযোগ করুন :

facebook contact me

ধন্যবাদ

ইজি টেকিং - একটি বাংলা ব্লগিং প্লাটফর্ম। এখানে বাংলা ভাষায় শিক্ষা ও প্রযুক্তি বিষয়ক বিভিন্ন জানা-অজানা তথ্য প্রকাশ করা হয়। বাংলা ভাষায় সবার মাঝে সঠিক তথ্য পৌছে দেয়াই আমাদের লক্ষ্য।

Leave a Comment