স্বপ্নে গোরস্থান দেখলে কি হয় | স্বপ্নে কবর দেখলে কি হয় | সত্য স্বপ্ন কিভাবে বুঝবো?

ইসলামের দৃষ্টিতে স্বপ্ন কি?

গবেষনার দেখা গেছে একজন সুস্থ মানুষ তার জীবনের প্রায় ৩০% বা তার ও বেশি সময় ঘুমিয়ে কাটায়। ঘুমন্ত অবস্থায় মানুষের ইন্দ্রিয়সমূহ নিস্তেজ বা প্রায় নিস্তেজ অবস্থায় থাকে। ঘুমন্ত অবস্থা মানুষ তার সাবকনসাস মাইন্ডে কিছু দৃশ্য কল্পনা করে বা দেখে বিজ্ঞানের ভাষায় এটাই হচ্ছে স্বপ্ন। বিজ্ঞান দিয়ে স্বপ্ন কে অনেকভাবে ব্যাখ্যা করা যায় এবং অনেকে মনে করে স্বপ্ন মানুষের কল্পনা ছাড়া কিছু ই না কিন্তু আমরা জানি ইসলামে স্বপ্নকে গুরুত্ব দেয়া হয়েছে এবং সত্য স্বপ্ন নবীজির আমল থেকে এখন পর্যন্ত চলে আসছে। অনেকেই জানতে চেয়েছেন স্বপ্নে গোরস্থান দেখলে কি হয় বা স্বপ্নে কবর দেখলে কি হয় আজকে আমরা এই ব্যাপারে জানবো ইনশাআল্লাহ।

আজকে আমরা স্বপ্নকে ব্যাখ্যা করবো মূলত ইসলামের চোখ দিয়ে অর্থাৎ যারা বিশ্বাস করেন স্বপ্নের অবশ্যই ব্যখ্যা আছে আজকের ব্লগ টা তাদের জন্য। হযর‍ত আবু হোরায়রা রাঃ হতে বর্নিত আছে রাসূল সঃ আমাদের ফজরের নামাজের পর জিজ্ঞেস করতেন তোমাদের মধ্যে কেউ স্বপ্ন দেখেছো কি না। অতঃপর তিনি স্বপ্নগুলো ব্যাখা করতেন। তাহলে এতটুকু নিশ্চিত স্বপ্ন ইসলামের শুরু থেকেই ছিলো। আজকে আমরা একটি নির্দিষ্ট স্বপ্ন নিয়ে ব্যাখ্যা করবো। আজকে জানবো স্বপ্নে গোরস্থান দেখলে কি হয় বা স্বপ্নে কবর দেখলে কি হয় ।

স্বপ্নে গোরস্থান দেখলে কি হয়

পবিত্র শরীরে থাকা অবস্থায় স্বপ্নে গোরস্থান দেখলে এর ব্যাখ্যা হচ্ছে বিপদ বা মসিবত নিকটবর্তী। একবার মহানবী হযরত মুহাম্মদ সঃ এর কাছে একজন সাহাবি জানতে চেয়েছেন যে ইয়া রাসুল আল্লাহ আমি স্বপ্নে কবর দেখেছি এখন আমার করনীয় কি? তখন নবিজী ওই সাহাবিকে আল্লাহর রাস্তায় কিছু দান সদকা করতে বলেছেন। তবে এর মানে এই না যে কবর দেখা মানেই আপনার মৃত্যু নিকটবর্তী বা আপনার খুব বড় কোন বিপদ হবেই হবে। তবে রাসূলের হাদিসের আলোকে বিশ্লেষন করলে আমাদের উচিৎ কবর দেখলে আল্লাহর রাস্তায় কিছু দান সদকা করে দেয়া।

স্বপ্ন দেখলে করনীয় কি?

স্বপ্ন দুই প্রকার হয় ভালো বা কল্যানকর স্বপ্ন খারাপ বা অকল্যানকর স্বপ্ন। ইসলামে এটা বিশ্বাস করা হয় যে ভালো বা কল্যানকর স্বপ্ন মহান আল্লাহর কাছ থেকে আসে আর খারাপ বা অকল্যানকর স্বপ্ন শয়তানের কাছ থেকে আসে। তাহলে চুলুন দেখে নেয়া যাক ভালো স্বপ্ন দেখলে করনীয় কি এবং খারাপ স্বপ্ন দেখলে করনীয় কি।

হযরত আবু কাতাদাহ রাঃ হতে বর্নিত  রাসূল সঃ বলেছেন  ভালো ও সুন্স্বদর প্ন মহান আল্লাহর কাছ থেকে আসে খারাপ স্বপ্ন আসে শয়তানের কাছ থেকে। তোমাদের মধ্যে কেউ যদি ভালো স্বপ্ন দেখে তাহলে শুধু তার কাছেই যাকে সে ভালোবাসে। অন্য কারো কাছে বলবে না।  আর কেউ যদি খারাপ স্বপ্ন দেখে তাহলে ঘুম থেকে জেগে শয়তানের কাছে থেকে আল্লাহর কাছে আশ্রয় প্রার্থনা করবে আর বাম দিকে তিনবার থুথু নিক্ষেপ করবে। এবং স্বপ্নের কথা কারো কাছে বলবে না। এমনটি করলে সে স্বপ্ন কোন ক্ষতি করতে পারবে না। [বুখারি]

কখন সপ্ন দেখলে সত্যি হয়

স্বপ্নের সময় নিয়ে ইসলামে স্পস্ট কিছু পাওয়া যায় না তবে ধারনা করা হয় ভোর বেলা বা ফজরের ওয়াক্ত পূর্ব মুহূর্তে স্বপ্ন দেখলে তা সত্য হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। যেমন হাদিসে এসেছে আবু হোরায়রা রাঃ হতে বর্নিত রাসূল সঃ বলেছেন কেয়ামত যত দিন যেতে থাকবে কেয়ামত নিকটে আসতে থাকবে আর মোমিনদের স্বপ্ন মিথ্যা থেকে দূরে থাকবে। ঈমানদার দের স্বপ্ন হলো নবুয়াতের ছেচল্লিশ ভাগের এক ভাগ। [বুখারি]

উপরে হাদিস থেকে এটা স্পস্ট বুঝা যায় ইসলামে সত্য স্বপ্ন অবশ্যই আছে অর্থাৎ মহান আল্লাহ তার প্রিয় বান্দাদের সত্য স্বপ্ন দেখান আবার একই সাতে শয়তান ও আমাদের ধোকা দেয়ার জন্য আমাদের বিভিন্ন রকম স্বপ্ন দেখায়। অবশ্য শয়তান আমাদের ঠিক স্বপ্ন দেখায় না, আমাদের মস্তিষ্কে এক প্রকার ইলুশান ক্রিয়েট করে আমাদের ভয় দেখানোর চেষ্ট করে। তবে কেউ যদি নবিজীর হাদিস অনুযায়ী আমল করে তাহলে আশা করি যায় খারাপ স্বপ্ন তার কোন ক্ষতি করতে পারবে না।

স্বপ্নে কবর দেখলে কি হয়

যেমনটা আমরা উপরে আলোচনা করেছি স্বপ্নে গোরস্থা দেখলে বা স্বপ্নে কবর দেখলে এর একটা ব্যাখ্যা হচ্ছে হয়তো আপনার সামনে দিনে আল্লাহর পক্ষ থেকে কোন মুসিবত আসতে পারে। তারমানে এই না কবর দেখা মানেই বড় কোন বিপদ হবেই। তবে নিরাপদ থাকার জন্য স্বপ্নে কব দেখলে বা স্বপ্নে গোরস্থান দেখলে আল্লাহর কাছে বেশি বেশি ক্ষমা চাইতে হবে ও আল্লাহর রাস্তায় কিছু দান সদকা করে দিতে হবে।

শেষ কথা

স্বপ্নের ব্যাখ্যা খুবই জটিল এবং সূক্ষ্ম একটা ব্যাপার। সবসময় স্বপ্ন দেখলেই যে সেটা বাস্তব হবে এমন না তবে স্বপ্নের ব্যাখ্যা যদি জানতেই হয় তাহলে অবশ্যই বিজ্ঞ কোন ব্যক্তি কাছে জানতে হবে। যেকারো সাথে স্বপ্নের ব্যাপারে আলোচনা করা কখনোই উচিৎ নয়। যেমন নবিজী বলেছেন তোমরা খারাপ স্বপ্ন দেখলে তা কারো কাছে বলবে না এবং নিজেতাও ব্যাখ্যা করার চেষ্টা করবে না। [বুখারি]

ইজি টেকিং - একটি বাংলা ব্লগিং প্লাটফর্ম। এখানে বাংলা ভাষায় শিক্ষা ও প্রযুক্তি বিষয়ক বিভিন্ন জানা-অজানা তথ্য প্রকাশ করা হয়। বাংলা ভাষায় সবার মাঝে সঠিক তথ্য পৌছে দেয়াই আমাদের লক্ষ্য।

Leave a Comment