হাতের চামড়া উঠার কারণ ও চিকিৎসা । হাতের চামড়া উঠার ক্রিম । পায়ের চামড়া ওঠে কেন

হাতের চামড়া উঠার কারণ

আসসালামু আলাইকুম বন্ধুরা। হাতের চামড়া উঠা যদিও সিজনাল প্রব্লেম অর্থাৎ বেশিরভাগ মানুষের ক্ষেত্রে শীতকালে এই সমস্যা বেশি দেখা দেয় আবার অনেকের গরম কালেও হাতের চামড়া উঠার সমস্যা দেখা যায়। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে এই সমস্যা সিজনাল হলেও কিছু কিছু ক্ষেত্রে সঠিক নিয়ম ফলো করার মাধ্যমে এই সমস্যা স্থায়ী সমাধান করা যায়। আজকে আমরা মূলত হাতের চামড়া উঠার কারণ, হাতের চামড়া উঠার ক্রিম অর্থাৎ হাতের চামড়া উঠা সমস্যা সমাধানের জন্য ক্রিম ও পায়ের চামড়া উঠার কারণ ও এর প্রতিকার ও চিকিৎসা নিয়ে বিস্তারিত জানার চেষ্টা করবো।

হাতের চামড়া উঠার কারন
ছবি: হাতের চামড়া উঠার কারণ ও চিকিৎসা

হাতের চামড়া কেন উঠে

যেমনটা উপরে বলা হয়েছে হাতের চামড়া উঠার কারণ রয়েছে। সিজনাল চামড়া উঠা কিছুটা খুবই সাধারন ব্যাপার অর্থাৎ শুধু শীত কাল বা শুধু গরম কালে হাত ও পায়ের চামড়া উঠা আমরা নরমাল ই বলতে পারি। তবে যদি সারা বছর ই চামড়া উঠতে থাকে তাহলে এটা আর নরমাল বলা যায় না। সেক্ষেত্রে এটাকে চিকিৎসা বিজ্ঞানের ভাষায় কেরাটোলাইসিস এক্সফোলিয়াটিচা বলা হয়। অর্থাৎ এটা চিকিৎসা বিজ্ঞানে একটা রোগ এবং সঠিকভাবে এই চিকিৎসা করাটা খুবই জরুরী। নয়তো ত্বকের নানা রকম জটিলতা সৃষ্টি হতে পারে।

হাতের চামড়া কেন উঠে তা রোগীর শরীর দেখে পরীক্ষা করার মাধ্যমে বলা যাবে। তবে আমরা কিছু কমন কারণ বলতে পারি যা সাধারনত রোগীর মধ্যে দেখা যায়।

  • জিনগত সমস্যা: বেশিরভাগ মানুষের ক্ষেত্রে এই সমস্যা হচ্ছে জিনগত। অর্থাৎ তার বংশে পূর্বে অন্য কারো ছিলো সেই সূত্রে পাওয়া। সমস্যা যদি হয় জিনগত তা সমাধান করা কিছুটা কঠিন এবং এক্ষেত্রে চিকিৎসা কিছুটা সময় সাপেক্ষ ও রোগীর কন্ডিশন অনুযায়ী ঔষধ দিতে হয়।
  • অপুষ্টিজনিত সমস্যা: নিয়মিত পর্যাপ্ত পরিমান প্রোটিন মিনারেল সহ দেহের প্রয়োজনীয় পুষ্টিগুন ঠিকভাবে শরীরে প্রবেশ না করলে ত্বকের নানা রকম ঝটিলতা সৃষ্টি হতে পারে। হাতের চামড়া ও পায়ের চামড়া উঠার অন্যতম একটি কারণ হচ্ছে অপুষ্টিজনিত সমস্যা।
  • ত্বকের যত্ন না নেয়া: হাতের চামড়া উঠার অন্যতম একটি কারণ হচ্ছে ত্বকের যত্ন না নেয়া। ত্বকের সঠিক যত্ন সঠিকভাবে না নিলে হাত ও পায়ের চামড়া উঠতে পারে।

হাতের চামড়া উঠা বন্ধ করার উপায়

এতক্ষন আমরা হাতের চামড়া উঠার কারণ সম্পর্কে বিস্তারিত জানলাম। এখন আমরা জানবো হাতের চামড়া উঠা বন্ধ করার উপায় কি? অনেকেই আমাদের কাছে জানতে চান হাতের চামড়া উঠার ক্রিম আছে কি না এবং হাতের চামড়া উঠার চিকিৎসা কি? সঠিক নির্দেশনার অভাবে অনেকেই এই রোগ থেকে মুক্তি পান না। তাই আজকে আমরা চেষ্টা করবো হাতের চামড়া উঠা বন্ধ করার উপায় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করতে।

প্রথমেই বলে রাখা উচিৎ হাতের চামড়া উঠলেই শুরুতে কোন ঔষধ না খাওয়াই ভালো। অর্থাৎ শুরুর দিকে ঘরোয়া কিছু পদ্ধতি ট্রাই করে দেখতে হবে সমস্যা সমাধান হচ্ছে কি না। আমরা নিচে হাতের চামড়া উঠার ক্রিমের নাম ও বলবো আবার কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি ও আলোচনা করার চেষ্টা করবো। শুরতে ঘরোয়া পদ্ধতি ট্রাই করে দেখার অনুরোধ থাকবে।

হাতের চামড়া উঠার চিকিৎসা

  • তিলের তেল ও গ্লিসারিন : হাতের চামড়া উঠা রোধ করার ঘরোয়া ও কার্যকরী চিকিৎসাগুলোর মধ্যে একটি হলো তিলের তেল ও গ্লিসারিন মিক্স করে হাতে মাখানো। সম পরিমান তিলের তেল ও গ্লিসারিন একটি পরিষ্কার পাত্রে নিয়ে কয়েক ঘন্টা পর পর হাত ও পায়ে মাখাতে পারেন। হাতের কাছে তিলের তেল না থাকলে অলিভ অয়েল বা জলপাই এর তেল ও ব্যবহার করতে পারেন। মিশ্রনটি হাত ও পায়ের চামড়া উঠার স্থানে লাগিয়ে ২০ মিনিট রেখে পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এভাবে দিনে ৩/৪ বার দিতে পারেন।
  • হাত ভেজা না রাখা: আপনি যদি নিয়মিত লম্বা সময়ের জন্য হাত ভেজা রাখেন তাহলে হাতের চামড়া মারত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। বিশেষ করে বাসায় মা বোনরা ডিটারিজেন্ট পাউডার দিয়ে কাপড় ধোয়ার পর অবশ্যই পরিষ্কার পানি দিয়ে হাত ধুয়ে পরিষ্কার কাপড় দিয়ে মুছে নিতে হবে। অন্যথায় হাত ও পায়ের চামড়া উঠার সমস্যা আরো বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাবনা থেকে যাবে।
  • সয়াবিনের গুড়া ব্যবহার: সয়াবিনের চুলার উপর হালকা গরম করে নিয়ে গুড়া করে একটি পাত্রে সংগ্রহ করুন। তারপর সয়াবিনের গুড়া পিশে হালকা গরম পানি দিয়ে মিক্স করে হাত ও পায়ের চামড়া উঠার স্থানে নিয়মিত লাগান। কারণ সয়াবিনের মিশ্রন হাতের চামড়া উঠা রোধে খুবই ভালো কাজ করে।
  • সুষম খাবার গ্রহন: সুষম খাবার গ্রহন না করাও হাত ও পায়ের চামড়া উঠার অন্যতম একটি কারণ। আপনার যদি হাত ও পায়ের চামড়া উঠার সমস্যা থাকে তাহলে অন্যান্য ট্রিটমেন্ট এর পাশাপাশি সুষম খাবার গ্রহনের প্রতি মনোযোগ দিতে হবে।
  • শ্যম্পু ও লবনের : একটি পরিষ্কার পাত্রে হালকা শ্যাম্পু ও লবনের একটি মিশ্রন করে হাত ও পায়ের চামড়া উঠার স্থানে মাখাতে পারেন। চামড়া উঠা রোধে শ্যাম্পু ও লবনের মিশ্রন খুবই পরিক্ষিত ও কার্যকরী একটি পদ্ধতি।
  • মধু, গ্লিসারিন ও লেবুর রস: সামান্য গরম পানিতে ১ টেবিল চামচ মধু, পরিমানমত গ্লিসারিন ও সামান্য লেবির রসের একসাথে মিশিয়ে হাত ও পায়ে নিয়মিত মাখলে চামড়া উঠার সমস্যা অনেকাংশেই কমে যায়। এছাড়া শুধু মধু এবং গ্লিসারিনের মিশ্রিন ও ব্যবহার করতে পারেন। কারণ মধু ও গ্লিসারিন ত্বকের জন্য খুবই উপকারি।

হাতের চামড়া উঠার ক্রিম

যেমনটা আমরা উপরে বলেছি হাতের চামড়া উঠার কারণ অনেক হতে পারে। হাত ও পায়ের সামান্য চামড়া উঠা বা শুধু শীতকালে উঠা কোন রোগ নয়। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে তা ঘরোয়া পদ্ধতিতে ট্রিটমেন্ট করলে চলে যায়। কিন্তু আপনার যদি হাত ও পায়ের চামড়া উঠার পরিমান বেশি হয় তাহলে আপনি কিছু ক্রিম ব্যবহার করতে পারেন।

হাতের চামড়া উঠার কারন
Clopirox cream 1%
  • Clopirox cream 1%: এই ক্রিমটি দিনে একবার হাত ও পায়ের তালুতে মাখবেন। ব্যবহারের আগে খেয়াল রাখতে হবে হাত ও পা যেনো পরিষ্কার থাকে। ক্রিমটির বর্তমান বাজার মূল্য ১১০ টাকা। এই ক্রিমের তেমন কোন পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নেই। অর্থাৎ এই ক্রিম ব্যবহারের ফলে আপনার ত্বকের কোন ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা নেই। টানা এক মাস ব্যবহার করলে আশা করা যায় আপনার হাত ও পায়ের তালুত চামড়া উঠার সমস্যা আর থাকবে না।
হাতের চামড়া উঠার কারন
TopicloS
  • TopicloS cream: এই ক্রিমটিও যথেষ্ট ভালো কাজ করে। SK+F কোম্পানির ক্রিমটি বর্তমান বাজার মূল্য ৭০ টাকা। হাত ও পায়ের তালু ভালোভাবে পরিষ্কার করে দিনে দুইবার করে একমাস ব্যবহার করবেন। টানা এক মাস ব্যবহারে আশা করা যায় আপনার হাত ও পাইয়ের তালুর অতিরিক্ত চামড়া উঠার সমস্যা আর থাকবে না। এই ক্রিমটির ও তেমন কোন পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নেই। অর্থাৎ এটিও আপনার ত্বকের কোন ক্ষতি করবে না।

হাতের চামড়া খসখসে হওয়ার কারণ

হাতের চামড়া উঠার কারণ গুলোর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে হাত ও পা শুষ্ক ও খসখসে থাকা। এখন প্রশ্ন হচ্ছে হাতের চামড়া খসখসে হওয়ার কারণ কি? হাত ও পায়ের চামড়া খসখসে হওয়ার অন্যতম কাওন হচ্ছে পরিষ্কার না করা। বিশেষ করে পায়ের চামড়া পরিষ্কার করা হয়া না বলে তা খসখসে হয়ে যায়। হাত পা পরিষ্কার রাখার পাশাপাশি চেষ্টা করতে হবে অলিভ অয়েল, আলোভেরার মত ময়েশ্চারাইজার জাতীয় তেল হাত ও পায়ে নিয়মিত মাখার চেষ্টা করতে হবে। এতে করে হাত ও পায়ের ত্বক আদ্র ও সুন্দর থাকবে।

শীতে হাতের চামড়া উঠে কেন

শীতে হাতে চামড়া উঠার প্রবনতা তুলনামূলক বেশি লক্ষ করা যায়। অনেকে প্রশ্ন করেন কেনো হাতের চামড়া তুলনামূলক বেশি উঠে কেনো? আসলে শীতকালে আমাদের ত্বক অন্যান্য সময়ের তুলনায় অনেক শুষ্ক ও রুক্ষ হয়ে যায়। তাই এই সময়ে অনেক মানুষের ই হাত ও পায়ের চামড়া উঠার বেশি প্রবনতা দেখা যায়। শীতকালে হাতের চামড়া উঠলে ভয় না পেয়ে আমাদের উপরে উল্লেখ করা ঘরোয়া পদ্ধতি গুলো ফলো করলে আশা করা যায় চামড়া উঠা কিছুটা লোপ পাবে। তবে মনে রাখতে হবে শীতকালে কিছু পরিমানে চমড়া উঠা কোন রোগ নয়। এটা অনেকের ক্ষেত্রেই হয়ে থাকে। তাই অযথা ঔষধ না খেয়ে খাবারের দিকে নজর দিতে হবে এবং ত্বকের অতিরিক্ত যত্ন নিতে হবে।

হাতের চামড়া কুচকে যাওয়া

হাতের চামড়া উঠার কারণ গুলোর মধ্যে একটি হচ্ছে হাতের চামড়া কুচকে যাওয়া। সাধারনত বয়সের সাথে সাথে মানুষের হাতের চামড়া কুচকে যায়। কিন্তু অনেকি আছেন যাদের কম বয়সেয় হাতের চামড়া কুচকে যাওয়া সমস্যা দেখা দিচ্ছে। এটা এক বিশেষ ধরনের রোগ বলা যায়। তবে নিয়মিত টমেটো খাওয়ার মাধ্যমে আপনি এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন। অর্থাৎ আপনার ও যদি হাতের চামড়া কুচকানোর সমস্যা থাকে তাহলে চেষ্টা করবেন প্রতিদিন কাচা ও পাকা টমেটো খেতে।এতে আশা করা যায় আপনার সমস্যা অনেকাংশেই লোপ পাবে।

ইজি টেকিং - একটি বাংলা ব্লগিং প্লাটফর্ম। এখানে বাংলা ভাষায় শিক্ষা ও প্রযুক্তি বিষয়ক বিভিন্ন জানা-অজানা তথ্য প্রকাশ করা হয়। বাংলা ভাষায় সবার মাঝে সঠিক তথ্য পৌছে দেয়াই আমাদের লক্ষ্য।

Leave a Comment